Train accidents in West Bengal: কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস দুর্ঘটনার আগে বাংলার ৫ মর্মান্তিক ট্রেন দুর্ঘটনা সম্বন্ধে বিস্তারিত জানুন, যার স্মৃতি আজও ভোলার নয়

Train accidents in West Bengal: কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস দুর্ঘটনা যেন তারই ভয়াবহ স্মৃতি আরও একবার উস্কে দিল

 

হাইলাইটস:

  • কেন বার বার রেল দুর্ঘটনা ঘটছে দেশের মাটিতে?
  • করমন্ডলের পর কেন আবারও মর্মান্তিক ট্রেন দুর্ঘটনার সাক্ষী থাকতে হল দেশবাসীকে?
  • যাত্রী নিরাপত্তা তবে কোথায়, উঠছে প্রশ্ন

Train accidents in West Bengal: শুধু কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস দুর্ঘটনাই নয়, অতীতেও একাধিক রেল দুর্ঘটনার সাক্ষী থেকেছে বাংলা। সে এক্সপ্রেস ট্রেনের পিছনে মালগাড়ির ধাক্কাই হোক বা লাইনচ্যুত হয়ে যাওয়া ট্রেন, বিগত কয়েক বছরে একাধিক ট্রেন দুর্ঘটনা ঘটেছে বাংলার মাটিতে। আর এইসব দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে অনেক মানুষের। আহতও হয়েছেন অনেকে। আর সেই সব দুর্ঘটনার তদন্তে নেমে উঠে এসেছে কখনও নাশকতার তত্ত্ব তো আবার কখনও উঠে এসেছে চালকের গাফিলতির কথা। সোমবার কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস দুর্ঘটনাও এই তালিকায় যোগ হয়েছে। এইরকম বার বার রেল দুর্ঘটনার পর যাত্রীদের নিরাপত্তা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে নানা মহলে। জেনে নিন বাংলায় ঘটে যাওয়া কয়েকটি মর্মান্তিক ট্রেন দুর্ঘটনার কথা –

We’re now on WhatsApp – Click to join

২০১০ সালে জ্ঞানেশ্বরী ট্রেন দুর্ঘটনা –

আজ থেকে প্রায় ১৪ বছর আগে ২০১০ সালের ২৮শে মে হাওড়া থেকে মুম্বাই যাওয়ার পথে ঝাড়গ্রামের কাছে লাইনচ্যুত হয়ে যায় কুরলা লোকমান্য তিলক জ্ঞানেশ্বরী সুপার ডিলাক্স এক্সপ্রেস। ঠিক রাত দেড়টা নাগাদ ট্রেনটি লাইনচ্যুত হয়। তারপর উল্টোদিক থেকে আসা একটি মালগাড়ি জ্ঞানেশ্বরী এক্সপ্রেসে সজোরে ধাক্কা মারে। জ্ঞানেশ্বরী দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় ১৪৮ জনের এবং আহত হন ১৮০ জন। এই ভয়াবহ দুর্ঘটনার তদন্তে নেমে তদন্তকারীরা জানতে পারেন যে, ওই এলাকার রেললাইনের ফিসপ্লেট আগে থেকেই সামান্য আলগা করা ছিল। ফলে এটি নিছক দুর্ঘটনা নয়। এর পিছনে রয়েছে নাশকতা। সেই সময় ওই এলাকায় কয়েকদিন ধরেই মাওবাদীরা বনধ ডেকেছিল। এই ঘটনার সাথে জড়িত ১১ জন সন্দেহভাজন মাওবাদীকে গ্রেফতারও করা হয়।

সাঁইথিয়ায় দুটি এক্সপ্রেসের সংঘর্ষ –

জ্ঞানেশ্বরী ট্রেন দুর্ঘটনার মাত্র কিছুদিন পড়েই ২০১০ সালের ১৯শে জুলাই বীরভূমের সাঁইথিয়া স্টেশনে উত্তরবঙ্গ এক্সপ্রেসের সঙ্গে বনাঞ্চল এক্সপ্রেসের সংঘর্ষ হয়। বনাঞ্চল এক্সপ্রেস প্ল্যাটফর্ম ছেড়ে যাওয়ার সময় পিছন থেকে ধাক্কা মারে উত্তরবঙ্গ এক্সপ্রেস। এই দুটি এক্সপ্রেসের সংঘর্ষে প্রায় ৬৬ জনের মৃত্যু হয় এবং আহত হন ১৬৫ জন।

We’re now on Telegram – Click to join

ময়নাগুড়িতে লাইনচ্যুত বিকানের-গুয়াহাটি এক্সপ্রেস –

মাত্র দু’বছর আগের ঘটনা। ২০২২ সালের ১৩ই জানুয়ারি ময়নাগুড়ির দোমোহনিতে লাইনচ্যুত হয়ে যায় বিকানের-গুয়াহাটি এক্সপ্রেস। ট্রেনটি রাজস্থানের বিকানের থেকে অসমের গুয়াহাটি যাচ্ছিল। ট্রেনের বগিগুলি খেলনা গাড়ির মতো একে অপরের ওপর উঠে পড়ে। তখন অভিযোগ ওঠে, ট্রেনের ইঞ্জিনে নাকি আগে থেকে সমস্যা ছিল। এমনকি ট্রেনটিকে রানিনগরে দাঁড় করিয়ে ইঞ্জিনের পরীক্ষাও করা হয়। এই দুর্ঘটনায় ৯ জনের মৃত্যু হয় এবং আহত জন ৪০ জনের বেশি।

গাইসলে দুটি ট্রেনের সংঘর্ষ –

১৯৯৯ সালের ২রা অগস্ট, ঘড়ির কাঁটায় ঠিক রাত ১টা ৪৫ মিনিট যাত্রীরা যখন ঘুমিয়ে ঠিক তখনই উত্তর দিনাজপুরের গাইসলে অবধ অসম এক্সপ্রেসের সঙ্গে ব্রহ্মপুত্র মেলের সংঘর্ষ হয়। ভুল সিগন্যালের ফলে ওই একই লাইনে দুটি ট্রেন চলে আসায় মৃত্যু হয় ২৮৫ জনের এবং জখম হন ৩০০ জনের বেশি।

Read more:- ভয়াবহ রেল দুর্ঘটনার সাক্ষী থাকল উত্তরবঙ্গ, এনজেপি-র কাছে কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসের পিছনে ধাক্কা মালগাড়ির!

বেলাকোবায় ট্রেনে বিস্ফোরণ –

২০০৬ সালের ২০শে নভেম্বর জলপাইগুড়ির বেলাকোবায় একটি প্যাসেঞ্জার ট্রেনে হঠাৎই বিস্ফোরণ ঘটে। নিউ জলপাইগুড়ি (NJP) থেকে হলদিবাড়ি যাতায়াতকারী প্যাসেঞ্জার ট্রেনে বিস্ফোরণের ঘটনায় মৃত্যু হয় ৭ জনের এবং জখম হন ৫০ জন।

এইরকম গুরুত্বপূর্ণ প্রতিবেদন পেতে ওয়ান ওয়ার্ল্ড নিউজ বাংলার সাথে যুক্ত থাকুন।

Sanjana Chakraborty

Professional Content Writer

Leave a Reply

Your email address will not be published.