Raksha Bandhan 2024: ২০২৪ সালে কখন রাখি বন্ধন উদযাপিত হবে, এখনই রক্ষা বন্ধনের তারিখ এবং শুভ সময় নোট করুন

Raksha Bandhan 2024: রাখি বন্ধনের ইতিহাস কী, ভাই বোনদের জন্য এই উৎসব কেন বিশেষ, এখানে সম্পূর্ণ তথ্য দেখুন!

হাইলাইটস:

  • রাখি বন্ধন হল ভারতীয় সাংস্কৃতিক ক্যালেন্ডারে সাওয়ান পূর্ণিমা তিথিতে উদযাপিত একটি হিন্দু উৎসব।
  • যা ভাই ও বোনের মধ্যে প্রেম ও ভক্তির প্রতীক হিসেবে বিবেচিত হয়।
  • এই দিনে, বোনেরা তাদের ভাইয়ের কব্জিতে রাখি বেঁধে তার নিরাপত্তা এবং সৌভাগ্যের জন্য প্রার্থনা করে।

Raksha Bandhan 2024: রাখি বন্ধন হল ভারতীয় সাংস্কৃতিক ক্যালেন্ডারে সাওয়ান পূর্ণিমা তিথিতে উদযাপিত একটি হিন্দু উৎসব, যা ভাই ও বোনের মধ্যে প্রেম ও ভক্তির প্রতীক হিসেবে বিবেচিত হয়। এই দিনে, বোনেরা তাদের ভাইয়ের কব্জিতে রাখি বেঁধে তার নিরাপত্তা এবং সৌভাগ্যের জন্য প্রার্থনা করে। এর সাথে ভাইরাও তাদের বোনদের সারাজীবন সমর্থন করার প্রতিশ্রুতি দেয়।

রক্ষাবন্ধনের ইতিহাস:

দেব-দেবীর যুগ থেকেই চলে আসছে রাখি বন্ধন উৎসব। একটি কিংবদন্তী অনুসারে, ভগবান ইন্দ্র যখন অসুর দ্বারা আক্রান্ত হন, তখন তাঁর স্ত্রী ইন্দ্রাণী বৃহস্পতির পরামর্শ অনুসারে মন্ত্র শক্তি দিয়ে ইন্দ্রের কব্জিতে একটি রেশম সুতো বেঁধে দেন এবং সেই দিনটি ছিল শবন পূর্ণিমা। এরপর দেবতারাও যুদ্ধে জয়ী হন। তারপর থেকে, প্রতি বছর মহিলারা তাদের ভাইয়ের কব্জিতে রক্ষা সূত্র বেঁধে তার বিজয়শ্রীর জন্য প্রার্থনা করে।

We’re now on Whatsapp – Click to join

মহাভারত কালের অন্য একটি গল্পে ভগবান কৃষ্ণের সাথে যুক্ত একটি গল্প আছে। শিশুপালের যুদ্ধে শ্রীকৃষ্ণের তর্জনী কেটে যায় এবং দ্রৌপদী তার শাড়ির কাপড় ছিঁড়ে বেঁধে ফেলেন। এর পরে, কৃষ্ণ তাকে রক্ষা করেন এবং তাকে রাখি বাঁধার প্রতিশ্রুতি দেন। এ কারণেই রক্ষাবন্ধনকে ভাই-বোনের ভালোবাসার প্রতীক মনে করা হয়।

রাখি বন্ধনের গুরুত্ব:

রাখি বন্ধন উৎসব হল ভাই-বোনের উৎসব যেখানে বোনেরা ভাইদের রাখি বেঁধে মিষ্টি খাওয়ায়। এই দিনে ভাইরা তাদের বোনদের রক্ষা করার প্রতিশ্রুতি দেয় এবং তাদের খুশি করার জন্য উপহার বা অর্থও দেয়।

রক্ষাবন্ধনের শুভ সময় ও শুভ যোগ:

পঞ্চাং অনুসারে, ২০২৪ সালের শবন পূর্ণিমা ১৯শে আগস্ট। তার শুভ সময়ে রাখি বাঁধা চমৎকার এবং গ্রহণযোগ্য। এর পাশাপাশি রক্ষাবন্ধনের দিনে শোভন যোগ, সর্বার্থ সিদ্ধি যোগ এবং রবি যোগও গঠিত হচ্ছে, যা এই উৎসবকে আরও বেশি শুভ করে তোলে।

রাখি বাঁধার গুরুত্বপূর্ণ তারিখ:

ভাদ্র কাল ও রাহুকালকে রাখি বাঁধার জন্য অশুভ মনে করা হয়। পুরাণ অনুসারে ভাদ্র কালে রাখী বাঁধার অশুভ প্রভাব রয়েছে এবং রাহুকালে রাখী বাঁধাও অশুভ বলে বিবেচিত হয়। তাই এসব সময় এড়িয়ে রাখি বেঁধে রাখাই ভালো।

রাখি বাঁধার উপযুক্ত সময়:

জ্যোতিষীদের মতে, রাখি বাঁধার সঠিক সময় দুপুর ১টা ৩১ মিনিট থেকে ৪টা ২০ মিনিট। এই সময়ের পরে, প্রদোষ কালেও রাখি বাঁধার সময় রয়েছে, যা সন্ধ্যা ০৬:৫৬ থেকে রাত ০৯:০৮ পর্যন্ত চলে। এই সময়ে রাখি বাঁধা অশুভ বলে মনে করা হয় এবং এড়িয়ে যাওয়া হয়।

রাখি বাঁধার পদ্ধতি:

রাখি বাঁধার পদ্ধতিও খুবই গুরুত্বপূর্ণ। রাখি বাঁধার আগে, বোনরা তাদের কপালে তাদের ভাইকে কুমকুম তিলক এবং অক্ষত দেয়। ভাইকে সবসময় কিছু টাকা ও অক্ষত হাতে রাখতে হবে এবং এর পরে রাখি বাঁধা হবে। রাখি বাঁধার পর ভাইয়ের জন্য আরতি করা হয় এবং তাকে মিষ্টি খাওয়ানো হয়। এর পরে, ভাই তার সামর্থ্য অনুযায়ী বোনকে উপহার দেয়, যা বোন তার ভালোবাসা এবং সমর্থন অনুভব করে।

রক্ষাবন্ধন উৎসব ভারতীয় সমাজে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং অত্যন্ত আনন্দের সাথে পালিত হয়। এই দিনে ভাই-বোনের সম্পর্ক মজবুত হয় এবং একে অপরের প্রতি ভক্তি বিনিময় করা হয়। রক্ষাবন্ধনের এই বিশেষ উপলক্ষ্যে, আমরা সবাই আমাদের পরিবারের সদস্যদের সাথে আনন্দ এবং ভালোবাসার সাথে এই উৎসবটি উদযাপন করার একটি অনন্য সুযোগ পাই।

এইরকম জীবনধারা সম্পর্কিত প্রতিবেদন পেতে ওয়ান ওয়ার্ল্ড নিউজ বাংলার সাথে থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.