Ripe Papaya Benefits: ভিটামিন ও খনিজ সমৃদ্ধ এই মিষ্টি ফল রোজ খেলেই রোগব্যাধির আক্রমণের সব চেষ্টাই হবে বিফল!

Ripe Papaya Benefits: এই মিষ্টি ফলে রয়েছে একাধিক জরুরি খনিজ, ভিটামিনের ভাণ্ডার

 

হাইলাইটস:

  •  সুস্থ-সবল জীবন কাটাতে চাইলে রোজের পাতে পেঁপে থাকতেই হবে
  •  তাহলেই কমবে গ্যাস-অ্যাসিডিটির সমস্যা
  •  এমনকী এড়িয়ে চলা যাবে ক্যানসারের মতো মারণ অসুখের ফাঁদ

Ripe Papaya Benefits: পুষ্টিবিজ্ঞানীদের কথায়, পেঁপেতে রয়েছে ভিটামিন এ, ভিটামিন সি, ভিটামিন বি৯, ভিটামিন বি১, ভিটামিন বি৩, ভিটামিন বি৫, ভিটামিন কে, ভিটামিন ই, ক্যালশিয়াম এবং পটাশিয়ামের ভাণ্ডার। আর এই সমস্ত উপাদান শরীরে পুষ্টির ঘাটতি দূর করার করার কাজে সিদ্ধহস্ত। এমনকী নিয়মিত এই ফল খেলে একাধিক জটিল রোগকেও সহজেই বশে রাখা সম্ভব। তাই সুস্থ-সবল নীরোগ জীবন কাটানোর ইচ্ছে থাকলে নিয়মিত পাকা পেঁপে খাওয়াটাই হবে আসল বুদ্ধিমানের কাজ। তাই আর দেরি না করে প্রতিদিন পাকা পেঁপে খাওয়ার একাধিক চমকপ্রদ গুণ সম্পর্কে বিশদে জেনে নিন।

১. অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের ভান্ডার ​

পেঁপেতে রয়েছে অত্যন্ত উপকারী কিছু অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের ভান্ডার। আর এইসব উপাদান দেহ থেকে ক্ষতিকর ফ্রি রেডিকেলস দূর করার কাজে সিদ্ধহস্ত। তাই নিয়মিত পাকা পেঁপে খেলে একাধিক জটিল-কুটিল অসুখের ফাঁদ এড়িয়ে চলা সম্ভব। এমনকী এই ফলের গুণে বাড়বে ইমিউনিটিও।

২. ক্যানসারের যম

পেঁপেতে লাইকোপেন নামক একটি উপাদান রয়েছে, যা শরীরে প্রদাহের প্রকোপ কমাতে পারে। এমনকী শরীর থেকে ক্ষতিকর সব উপাদানকে বাইরে বের করে দেওয়ার কাজেও এই উপাদান একাই একশো। তাই নিয়মিত পাকা পেঁপে খেলে ক্যানসারের মতো মারণ অসুখের ফাঁদে পড়ার আশঙ্কা কমে।

We’re now on WhatsApp – Click to join

​৩. হৃদপিন্ডের বন্ধু​

এই উপকারী ফলে এমন কিছু উপাদান রয়েছে যা কোলেস্টেরলকে বশে রাখার কাজে সিদ্ধহস্ত। আর খারাপ কোলেস্টেরলকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারলে যে অনায়াসে হার্টের হাল ফিরবে, তা তো বলাই বাহুল্য!

​৪. পেটের সমস্যা দূর হবে

অনেকেই নিয়মিত গ্যাস, অ্যাসিডিটির ফাঁদে পড়ে ভীষণই কষ্ট পান! আর এইসব ছুটকো পেটের সমস্যার বিরুদ্ধে একদম মহৌষধির মতো কাজ করে পাকা পেঁপে। কারণ এই ফলে রয়েছে প্যাপাইন নামক একটি এনজাইম, যা খাদ্য হজমে সহায়তা করে।

৫. কোষ্ঠকাঠিন্যের মহৌষধি

প্রতিদিন নিয়ম করে পাকা পেঁপে সেবন করলে দেহে ফাইবারের চাহিদা মিটে যাবে। আর তার ফলে অচিরেই অন্ত্রে মলের গতিবিধি বাড়বে। ফলে সকালবেলা পেট পরিষ্কারে আর বেগ পেতে হবে না। তাই কোষ্ঠকাঠিন্য রোগীদের রোজের ডায়েটে এই ফলকে জায়গা করে দেওয়াটাই হবে বুদ্ধিমানের কাজ।

এইরকম স্বাস্থ্য এবং জীবনধারা সম্পর্কিত প্রতিবেদন পেতে ওয়ান ওয়ার্ল্ড নিউজ বাংলার সাথে যুক্ত থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.