Royal Enfield Shotgun 650: বাজারে লঞ্চ হয়ে গেল Royal Enfield Shotgun 650, দাম কত? কলকাতায় এই বাইকের অন-রোড প্রাইস জেনে নিন

Royal Enfield Shotgun 650: রূপে-গুণে দুরন্ত রয়্যাল এনফিল্ড শটগান 650 ইতিমধ্যেই সাড়া ফেলেছে সামাজিক মাধ্যমে

 

হাইলাইটস:

  •  এই মোটরসাইকেলে পাবেন 650 সিসির শক্তিশালী ইঞ্জিন
  •  সাথে থাকছে দারুন সব ফিচার্স
  •  কলকাতায় এই মোটরসাইকেলে অন-রোড প্রাইস কত জেনে নিন

Royal Enfield Shotgun 650: এমন অনেক মধ্যবিত্ত গ্রাহকই আছেন যাঁদের স্বপ্ন রয়্যাল এনফিল্ডের মোটরসাইকেল কেনার। আর সময়ের সাথে সাথে আরও তীব্র হচ্ছে সেই ইচ্ছা। অন্যদিকে কোম্পানিও সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে নতুন নতুন বাইক আনছে বাজারে। তেমনই একটি বাইক সম্প্রতি লঞ্চ হয়েছে। যার নাম Royal Enfield Shotgun 650।

রূপে-গুণে চমৎকার এই মোটরসাইকেলে রয়েছে 650 সিসির শক্তিশালী ইঞ্জিন। এই মোটরসাইকেল তিনটি ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাবে – কাস্টম শেড, কাস্টম প্রো এবং কাস্টম স্পেশাল। মোটরসাইকেলের এক্স-শোরুম দাম 3.59 লক্ষ্য টাকা। কিন্তু, অন-রোড এই মোটরসাইকেলের দাম কত পড়বে জেনে নিন।

Royal Enfield Shotgun 650 এর অন-রোড দাম

কলকাতায় এই মোটরসাইকেলের বিভিন্ন ভ্যারিয়েন্টের আলাদা আলাদা দাম। শটগানের অন-রোড প্রাইস পড়বে – কাস্টম শেড (4.20 লক্ষ্য টাকা), কাস্টম প্রো (4.32 লক্ষ্য টাকা) এবং কাস্টম স্পেশাল (4.35 লক্ষ্য টাকা)।

We’re now on WhatsApp – Click to join

Royal Enfield Shotgun 650 বৈশিষ্ট্য কী কী?

সংস্থার দাবি, সিটি রাইডিংয়ের পাশাপাশি যারা অফবিট বা লং ট্রিপের ক্ষেত্রেও দারুন পারদর্শী এই বাইক। এই বাইকে 648 সিসি এয়ার-অয়েল কুল্ড ফুয়েল ইনজেকটেড ইঞ্জিন দেওয়া হয়েছে যা সর্বোচ্চ 46 হর্সপাওয়ার (7200 Rpm) এবং 52 এনএম টর্ক (5650 Rpm) উৎপন্ন করতে সক্ষম। সেই সঙ্গে এই বাইকে রয়েছে 6 স্পিড গিয়ারবক্স।

Royal Enfield Shotgun 650-এর ফুয়েল ট্যাংক ক্যাপাসিটি 13.8 লিটার এবং রিসার্ভ ফুয়েল ক্যাপাসিটি 2.7 লিটার। তার সাথে অ্যাসিস্ট ও স্লিপার ক্লাচ পাবেন। মোটরসাইকেলের দুটি চাকাতেই ফ্রন্ট ও রিয়ার সাপেনশন প্রি লোড অ্যাডজাস্টার, ডিস্ক ব্রেক এবং ডুয়াল চ্যানেল অবস্থা পাওয়া যাবে।

Royal Enfield Shotgun 650-এর গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স রয়েছে 140 মিলিমিটার এবং সিটের উচ্চতা 795 মিলিমিটার। ফিচার্স রয়েছে ডিজিটাল ওডোমিটার, অ্যানালগ স্পিডোমিটার, সেমি-ডিজিটাল ইনস্ট্রুমেন্ট ক্লাস্টার, ডিজিটাল ট্রিপমিটার, গিয়ার ইন্ডিকেটর, LED হেডলাইট, টেল লাইট, মোবাইল কানেক্টিভিটি (ব্লুটুথ), টার্ন সিগন্যাল ল্যাম্প, নেভিগেশন ও জিপিএস এবং USB চার্জিং পোর্ট।

গাড়ি ও বাইক সংক্রান্ত আরও প্রতিবেদন পেতে ওয়ান ওয়ার্ল্ড নিউজ বাংলার সাথে যুক্ত থাকুন।

1 Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.