Mangoes Benefits: ভিটামিন ও খনিজে ভান্ডার এই ফল, ফলের রাজা আমের উপকারীতায় সুস্থ থাকবে চোখ থেকে শুরু করে হার্টের মতো অন্যান্য অঙ্গও

Mangoes Benefits: আজকের প্রতিবেদন থেকে আমের গুণাগুণ সম্পর্কে বিশদে জেনে নিন

 

হাইলাইটস:

  • গুণের দিক থেকে আমের জুড়ি মেলা ভার
  • নিয়মিত এই ফল খেলেই সুস্থ থাকবে হার্ট
  • এমনকী ফিরবে চোখের হাল

Mangoes Benefits: তীব্র গরমে নাজেহাল অবস্থা রাজ্যবাসীর। তবে এমন ঘর্মাক্ত আবহাওয়ার মধ্যেও আমাদের মনকে একদণ্ড শান্তি প্রদান করে ফলের রাজা আম। তাই তো এখন যে কোনও বাঙালি বাড়িতে আর কিছু পান না পান, পাকা আম ঠিক পাবেন।

তবে শুধু স্বাদেই নয়, গুণের দিক থেকেও এই ফলের জুড়ি মেলা ভার। কারণ, এই ফলে রয়েছে ভিটামিন ও খনিজের ভাণ্ডার। শুধু তাই নয়, এই ফলে উপকারী কিছু অ্যান্টিঅক্সিডেন্টও মজুত রয়েছে। আর এইসব উপাদান একাধিক রোগকে দূরে রাখার কাজে সিদ্ধহস্ত। তাই আর কালবিলম্ব না করে আজকের প্রতিবেদন থেকেই নিয়মিত পাকা আম খাওয়ার উপকারী দিকগুলি সম্পর্কে বিশদে জেনে নেওয়া যাক।

We’re now on WhatsApp – Click to join

ভিটামিন ও খনিজের ভাণ্ডার

বাঙালির অতি প্ৰিয় আমে রয়েছে ভিটামিন সি, ভিটামিন বি৬, ভিটামিন এ, ভিটামিন কে, ভিটামিন ই, কপার, ফোলেট, নিয়াসিন থেকে শুরু করে, রাইবোফ্লাভিন, ম্যাগনেশিয়াম এবং থিয়ামিনের মতো একাধিক উপকারী খনিজ এবং ভিটামিন।

এখানেই শেষ নয়, এই ফলে রয়েছে অ্যান্থোসায়ানিন, ম্যাঙ্গিফেরিন, ক্যাটেচিনস, গ্যালিক অ্যাসিড থেকে শুরু করে একাধিক উপকারী অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের ভান্ডার। আর এইসব উপাদান বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধের কাজে শরীরের ঢাল হয়ে দাঁড়ায়।

তরতরিয়ে বাড়বে ইমিউনিটি​

আমাদের চারপাশে একাধিক ক্ষতিকর ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়ার সাজানো সংসার রয়েছে। আর সুযোগ পেলেই এসব জীবাণু শরীরের উপর আক্রমণ করতে পারে। তাই সুস্থ থাকতে হলে দেহের ইমিউনিটি বাড়িয়ে নেওয়াটাই আসল বুদ্ধিমানের কাজ হবে। আর এই কাজে আপনাকে সাহায্য করবে আম। কারণ এই ফলে রয়েছে ভিটামিন এ, ভিটামিন সি, কপার, ফোলেট, ভিটামিন ই, ভিটামিন বি। তাই তো নিয়মিত পাকা আম খেয়ে রসনাতৃপ্তি করার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা।

We’re now on Telegram – Click to join

সুস্থ-সবল​ থাকবে হার্ট

মানব দেহের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গগুলির মধ্যে একটি হল হৃদপিন্ড। তাই সুস্থ-সবল​ জীবন কাটাতে চাইলে এই অঙ্গের হাল ফেরাতেই হবে। আর সেই কাজে আপনাকে সাহায্য করতে পারে আম। কারণ, আমে রয়েছে ম্যাগনেশিয়াম এবং পটাশিয়ামের খনি। আর এই দুই খনিজ রক্তনালীকে রিল্যাক্স করার কাজে সিদ্ধহস্ত। এমনকী ব্লাড প্রেশারও কমায়। এর পাশাপাশি, এই ফলে মজুত ম্যাঙ্গিফেরিন নামক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হার্টের কোষের ক্ষয়ক্ষতিও রোধ করতে সাহায্য করে। তাই আর দেরি না করে আজ থেকেই এই সুস্বাদু ফলকে আপনার রোজের ডায়েটে জায়গা করে দিন।

Read more:- আম পাতার উপকারীতা জানেন? নিয়মিত এই পাতা খেলে নিয়ন্ত্রণে থাকবে সুগার-প্রেশারের মতো একাধিক জটিল সমস্যা!

​পেটের সমস্যা দূর হবে​

আমে অ্যামাইলেজ নামক একটি ডায়জেস্টিভ এনজাইম মজুত রয়েছে। আর এই উৎসেচক হজমক্ষমতা বাড়ানোর কাজে একাই একশো। শুধু তাই নয়, এই ফলে মজুত ফাইবারের গুণে কোষ্ঠকাঠিন্য এবং ডায়ারিয়ার মতো সমস্যাকেও অনায়াসে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব। তাই নিয়মিত পেটের সমস্যায় ভুগলে এই অতিপরিচিত ফলকে ডায়েটে রাখতেই হবে। আশা করছি, তাতেই উপকার মিলবে হাতেনাতে।

এইরকম স্বাস্থ্য এবং জীবনধারা সম্পর্কিত প্রতিবেদন পেতে ওয়ান ওয়ার্ল্ড নিউজ বাংলার সাথে যুক্ত থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.