Cyclone Remal Update: ভোটের দিনই বাংলায় আছড়ে পড়তে পারে ঘূর্ণিঝড়! এনডিআরএফ-কে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিল নির্বাচন কমিশন

Cyclone Remal Update: শনিবার থেকে রবিবারের মধ্যে রাজ্যে ঘূর্ণিঝড় রিমল আছড়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে!

 

হাইলাইটস:

  • তবে এখনও ষষ্ঠ দফার নির্বাচনের দিন পিছনোর বিষয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নেয়নি কমিশন
  • জাতীয় নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে সাইক্লোনের অভিমূখ কোন দিকে জানতে টাস্কফোর্সের তথ্যের উপর নজর রাখা হচ্ছে
  • আবহাওয়া দপ্তর সিইও অফিসকে জানিয়েছে আগামী ২৬ মে-ই রাজ্যে মূল ঝঞ্ঝা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে

Cyclone Remal Update: বঙ্গোপসাগর উপকূলে মাথা চাড়া দিচ্ছে ঘূর্ণিঝড় রিমল। এনডিআরএফকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। তবে কমিশন সূত্রে খবর, এখনও ষষ্ঠ দফার নির্বাচনের দিন পিছানোর বিষয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। জাতীয় নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে সাইক্লোনের অভিমূখ কোন দিকে জানতে টাস্কফোর্সের তথ্যের উপর নজর রাখা হচ্ছে। এদিকে মঙ্গলবারই মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিকের কার্যালয়ের তরফে স্থানীয় আবহাওয়া দপ্তরের আধিকারিকদের সঙ্গে একটি বৈঠক করা হয়। সূত্র মারফত জানা গেছে, আবহাওয়া দপ্তর সিইও অফিসকে জানিয়েছে আগামী ২৬ মে-ই রাজ্যে মূল ঝঞ্ঝা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। হাওয়া অফিসের তরফে জানানো হয়েছে মূল আশঙ্কা কেন্দ্রীভূত হচ্ছে শনিবার থেকে রবিবারের মধ্যে৷

We’re now on WhatsApp – Click to join

আবহাওয়া দফতরের তরফে বলা হয়েছে, শনিবার থেকে রবিবারের মধ্যে বালাসোর থেকে বাংলাদেশের মধ্যে বিস্তৃত উপকূলের কোনও একটি অংশে ঘূর্ণিঝড় রিমল আছড়ে পড়তে পারে৷ দু’টি প্রেডিকশন মডেলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এই ঘূর্ণিঝড় সুন্দরবন এলাকায় আছড়ে পড়তে পারে৷ আবার, একটি প্রেডিকশন মডেল থেকে জানা গেছে, ঘূর্ণিঝড় রিমল আছড়ে পড়তে পারে দীঘা উপকূলে৷ সব মিলিয়ে এ রাজ্যের আশঙ্কা থাকছেই৷

We’re now no Telegram – Click to join

যদিও আইএমডি-র তরফ থেকে এখনও নিশ্চিত কিছু বলা হয়নি, ঠিক কোথায় ঘূর্ণিঝড় আসতে চলেছে৷ ঘূর্ণিঝড় কতটা শক্তিশালী, সেই ব্যাপারেও এখনও কিছু স্পষ্ট করে বলা হয়নি৷ কারণ, ঘূর্ণিঝড়ের গতিপ্রকৃতি এখনও পর্যন্ত পরিস্কার নয়৷ তবে স্মৃতিতে ঘূর্ণিঝড় আয়লা বা আমফানের স্মৃতি রয়েছে৷ সে কথা মাথায় রেখে প্রশাসন আগে থেকেই প্রস্তুত থাকতে চাইছে৷ আপাতত এনডিআরএফকে যে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, সেখানে বলা হয়েছে, যথেষ্ট পরিমাণ প্লাস্টিক এবং সেই সঙ্গে ত্রিপলও মজুত রাখতে হবে৷ এ ছাড়া ডিসিআরসি সেন্টারগুলিকে ঝড়ের সাথে যুঝতে পারার মতো পোক্ত করে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷ এছাড়া, প্রতিটা লোকসভা কেন্দ্রে প্রয়োজনীয় এনডিআরএফ কর্মী মজুত রাখার নির্দেশ দিয়েছে প্রশাসন৷

Read more:- হাতে সময় আর মাত্র ৪৮ ঘণ্টা! সাগরে ঘূর্ণিঝড় তৈরির সম্ভাবনা প্রবল! ল্যান্ডফল কোথায় হবে?

রাজ্য সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ প্রতিবেদন পেতে ওয়ান ওয়ার্ল্ড নিউজ বাংলার সাথে যুক্ত থাকুন।