Best Air Cooler: এসির বিকল্প খুঁজছেন? মধ্যবিত্তের বাজেটের মধ্যে দেখে নিন এই ৫টি সেরা কুলার

Best Air Cooler: এসির মতো ঘর ঠান্ডাও করে এবং এসির তুলনায় অনেকটাই দাম কম কুলারের

হাইলাইটস:

  • বর্তমানে এসির যা দাম তা মধ্যবিত্তের নাগালের বাইরে
  • তাই তারা ঘর ঠান্ডা করতে এসির বিকল্প খুঁজতে চান
  • ওয়ান ওয়ার্ল্ড নিউজ বাংলা নিয়ে এসেছে মধ্যবিত্তের বাজেটের মধ্যে সেরা কিছু কুলার

Best Air Cooler: বর্ষা প্রবেশের সুখবর পেলেও চলতি মাসে রেহাই পাওয়া সম্ভব নয় গরম থেকে। আবহাওয়া দফতর সূত্রে এমনই খবর শোনা যাচ্ছে। এই হাঁসফাঁস গরম থেকে মুক্তি পেতে বেশিরভাগই ভরসা রাখছেন এসির উপর। তবে এসি কেনা মানে অনেক প্রায় ৫০ হাজার টাকা ইনভেস্টমেন্ট। ফলে সকলের পক্ষে এসি কেনা সম্ভবও হয় না। যাদের বাজেট কম তারা এয়ার কুলার (Air Cooler) বেছে নিতে পারেন। এক্ষেত্রে পার্সোনাল বা উইন্ডো এয়ার কুলারই ভালো। জায়গা কম লাগার সাথে সাথে এক ঘর থেকে অন্য ঘরে সহজে নিয়েও যাওয়া যায়। এখানে সেরা ৫টি এয়ার কুলারের তালিকা দেওয়া হল। বিস্তারিত দেখে নিন –

We’re now on WhatsApp – Click to join

Bajaj PX97 Torque New 36L Personal Air Cooler: ২০০-২১০ বর্গফুটের রুমের জন্য তৈরি করা হয়েছে এই বিশেষ কুলারটি। যাতে দেওয়া রয়েছে ৩৬ লিটারের একটি জলের ট্যাঙ্ক এবং ডুরামেরিন পাম্প। বিদ্যুৎ খরচ হয় মোটামুটি ১০০ ওয়াটের মতো। মাত্র ১০ হাজার টাকার মধ্যে এই কুলারটি আপনি কিনতে পারবেন।

Symphony Hicool i 31L Personal Air Cooler: এই কুলারটি রিমোটের সাহায্যে ব্যবহার করা যায়। এমনকি এতে টাচ কন্ট্রোল প্যানেলও রয়েছে। এতে রয়েছে আই-পিওর প্রযুক্তি, যা বিশুদ্ধ বায়ু দেয়। কুলারটিতে রয়েছে ৩১ লিটারের একটি জলের ট্যাঙ্ক। ২০০-২২০ বর্গফুটের ঘরের জন্যই এটি তৈরি করা হয়েছে। মোটামুটি ১৮৫ ওয়াট বিদ্যুৎ খরচ হয়। এটির দাম ১০-১২ হাজার টাকার মধ্যে।

We’re now on Telegram – Click to join

Havells Fresco-i 24L Personal Air Cooler: এই কুলারটি তৈরি করতে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। যেমন, অনায়াসে জল নিষ্কাশন এবং আর্দ্রতা নিয়ন্ত্রণের জন্য ব্যবহার করা হয়েছে অটো ড্রেন। এমনকি এতে হয়েছে ডাস্ট ফিল্টারও। এটিও রিমোট সাহায্যে ব্যবহার করা হয়। জলের ট্যাঙ্ক রয়েছে ২৪ লিটারের। এই কুলারটি একদম ছোট ঘরেও ব্যবহার করা যাবে। দাম পড়বে ৫-৮ হাজারের মধ্যে।

Crompton Marvel Neo Personal Air Cooler: এই কুলারটি ১৫০ বর্গফুটের ঘরের জন্য আদর্শ। এটি ইনভার্টারেও চালানো যায়। এতে রয়েছে ৪ ওয়ে এয়ার ডিফ্লেকশন, এভারলাস্ট পাম্প এবং হাই-ডেনসিটি হানিকম্ব প্যাডের মতো একাধিক ফিচার। তবে জলের ট্যাঙ্ক রয়েছে ২৩ লিটারের। বিদ্যুৎ খরচ হয় ১৬৫ ওয়াট। এটির দাম ৭-৮ হাজার টাকার মধ্যে।

Read more:- কুলার থেকে এসির মতো শীতলতা পেতে এই টিপসগুলি অনুসরণ করুন

Ekvira High-Speed Cooler Fan: কমপ্যাক্ট এবং পোর্টেবল কুলিং সলিউশনের কথা বললে এই কুলারটির কথাই প্রথমে মাথায় আসে। বাড়ি, রান্নাঘর বা ছোটখাট অফিসের জন্য জন্য এটি আদর্শ। সবচেয়ে বড় কথা হল, এতে জল ভরার কোনও দরকার নেই। এতে ৬০ ওয়াট বিদ্যুৎ খরচ হয়। এই কুলারটি আপনি ১০ হাজার টাকার মধ্যে পেয়ে যাবেন।

এইরকম টেক দুনিয়ার প্রতিবেদন পেতে ওয়ান ওয়ার্ল্ড নিউজ বাংলার সাথে যুক্ত থাকুন।

Sanjana Chakraborty

Professional Content Writer

Leave a Reply

Your email address will not be published.