Atal setu: প্রধানমন্ত্রী মোদী আজ দেশের দীর্ঘতম সেতু উদ্বোধন করবেন, অটল সেতু ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের অনন্য উদাহরণ

Atal setu: সমুদ্র সেতু ‘সেভারী-নাভা শেভা অটল সেতু’ ১৫ মিনিটে ২ ঘন্টা দূরত্ব অতিক্রম করে

হাইলাইটস:

  • আজ দেশের দীর্ঘতম সেতু অটল সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।
  • ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ীর নামানুসারে এর নামকরণ করা হয়েছে অটল সেতু।
  • এই সেতুটি মুম্বাইকে নভি মুম্বাইয়ের সাথে সংযুক্ত করবে, যার ফলে প্রায় ১৫ মিনিটে দুই ঘন্টার যাত্রা শেষ হবে।

Atal setu: আজ দেশের দীর্ঘতম সেতু অটল সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ীর নামানুসারে এর নামকরণ করা হয়েছে অটল সেতু এবং এই সেতুটি মুম্বাইকে নভি মুম্বাইয়ের সাথে সংযুক্ত করবে, যার ফলে প্রায় ১৫ মিনিটে দুই ঘন্টার যাত্রা শেষ হবে।

We’re now on Whatsapp – Click to join

https://x.com/LahariyaRashmi/status/1745701942259777983?s=20

দেশের দীর্ঘতম সেতুর বিশেষত্ব-

এই অটল সেতু হবে দেশের দীর্ঘতম সমুদ্র সেতু, যার দৈর্ঘ্য ২১.৮ কিলোমিটার পর্যন্ত। এই সেতুর ১৬.৫ কিলোমিটার সমুদ্রের উপরে এবং ৫.৫ কিলোমিটার ভূমির উপরে, যদিও এটি একটি ৬ লেনের সড়ক সেতু। এই অনন্য সেতুটি মুম্বাইকে নভি মুম্বাইয়ের সাথে সংযুক্ত করে, যার মাধ্যমে দুই ঘন্টার যাত্রা প্রায় ১৫ মিনিটে সম্পন্ন হবে। এর মাধ্যমে পুনে, গোয়া এবং দক্ষিণ ভারতের যাত্রাও কম সময়ে সম্পন্ন করা যাবে। এই সেতু তৈরির সময় নিরাপত্তার কথাও মাথায় রাখা হয়েছে, এরপর কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন ১৯০টি সিসিটিভি ক্যামেরাও বসানো হয়েছে। বর্তমানে বিশ্বের ১২তম দীর্ঘতম সমুদ্র সেতুও রয়েছে, যা ১৭ হাজার ৮৪০ কোটি টাকা ব্যয়ে সম্পন্ন হয়েছে।

https://x.com/ANI/status/1745411704069214262?s=20

‘সেভারী-নাভা শেভা অটল সেতু’ আর কি-

ছয় লেনের এই সেতু দিয়ে প্রতিদিন ৭০ হাজারের বেশি যানবাহন চলাচল করতে পারে। সেতুর ওপর দিয়ে ঘণ্টায় ১০০ কিলোমিটার বেগে ট্রেন চলাচল করবে, যার ফলে ঘণ্টার যাত্রা মিনিটেই শেষ হবে।

এই সেতুর সবচেয়ে বড় বিশেষত্ব হল এতে আইফেল টাওয়ারের চেয়ে ১৭ গুণ বেশি স্টিল ব্যবহার করা হয়েছে এবং কলকাতার হাওড়া ব্রিজের চেয়ে চার গুণ বেশি স্টিল ব্যবহার করা হয়েছে।

এই সেতু নির্মাণে যে কংক্রিট ব্যবহার করা হয়েছে তা আমেরিকার স্ট্যাচু অফ লিবার্টির থেকে ছয় গুণ বেশি।

এই অটল সেতু নির্মাণে প্রায় ১৭৭,৯০৩ মেট্রিক টন ইস্পাত এবং ৫০৪,২৫৩ মেট্রিক টন সিমেন্ট ব্যবহার করা হয়েছে।

অটল সেতু এত শক্তিশালী যে এটি ভূমিকম্প, উচ্চ জোয়ার এবং শক্তিশালী বাতাস দ্বারা প্রভাবিত হবে না।

এই সেতুটি ইপোক্সি-স্ট্র্যান্ড সহ একটি বিশেষ উপাদান থেকে তৈরি করা হয়েছে, যা পারমাণবিক চুল্লি তৈরিতে ব্যবহৃত হয়।

https://x.com/mustakecare/status/1745700032375091662?s=20

এইরকম জীবনধারা সম্পর্কিত প্রতিবেদন পেতে ওয়ান ওয়ার্ল্ড নিউজ বাংলার সাথে থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.