Kuwait Fire Incident: কুয়েতের বহুতলে আগুন লাগার ঘটনায় মৃত ৪৯, যার মধ্যে ৪০ জন ভারতীয়, আর্থিক সাহায্য কেন্দ্রের

Kuwait Fire Incident: কেন্দ্রের প্রতিনিধি হিসাবে কুয়েতে পৌঁছে গিয়েছেন বিদেশ প্রতিমন্ত্রী কীর্তিবর্ধন সিংহ

 

হাইলাইটস:

  • কুয়েতের বহুতলে আগুন লাগায় মৃত্যু হয়েছে ৪০ জন ভারতীয়
  • জানা যাচ্ছে, ওই আবাসনেই থাকত তাঁরা
  • মৃতদের পরিবারকে আর্থিক সাহায্য কেন্দ্রের

Kuwait Fire Incident: বুধবার ভোরে কুয়েতের মনগফ এলাকায় একটি বহুতলে হঠাৎই আগুন লেগে যায়। সেই বহুতলে বসবাস করতেন প্রায় ১৬০ জন শ্রমিক। প্রথমে বহুতলটির একটি রান্নাঘরে আগুন লাগে, পরে তা ছড়িয়ে পড়ে গোটা বহুতলে। কুয়েতের উপ-প্রধানমন্ত্রী শেখ ফাহাদ ইউসুফ সৌদ আল-সাবাহ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে তিনি এই ঘটনার জন্য নির্মাণ ব্যবসায়ীদের লোভকেই দায়ী করেছেন বলেই জানা যাচ্ছে।

We’re now on WhatsApp – Click to join

নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই সঙ্গে আহতদের দ্রুত সুস্থতার জন্যও কামনা করেছেন তিনি। বুধবার রাতে বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর কুয়েতের বিদেশমন্ত্রী আলি আল-ইয়াহিয়ার সঙ্গে এই বিষয়ে দীর্ঘক্ষণ কথা বলেন। আহতদের চিকিৎসার বিষয়টি দেখভাল করতে এবং নিহতদের দ্রুত দেশে ফিরিয়ে আনতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ইতিমধ্যেই কেন্দ্রের প্রতিনিধি হিসাবে কুয়েতে পৌঁছে গিয়েছেন বিদেশ প্রতিমন্ত্রী কীর্তিবর্ধন সিংহ।

ভারতের বিদেশ মন্ত্রক সূত্রে জানানো হয়েছে, যাঁরা আহত হয়েছেন তাঁদের প্রয়োজনীয় সাহায্য করা হবে এবং যাঁরা মারা গিয়েছেন তাঁদের দেহাবশেষ দ্রুত ভারতে ফিরিয়ে আনা হবে। কুয়েতের বহুতলে আগুন লাগার ঘটনায় বেড়েই চলেছে মৃতের সংখ্যা। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এই ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে ৪৯ জনের, নিহতদের মধ্যে ৪০ জনই ভারতীয়।

We’re now on Telegram – Click to join

ভারতীয় ছাড়াও নিহত শ্রমিকদের মধ্যে বেশ কয়েক জন রয়েছেন মিশর, নেপাল, পাকিস্তান এবং ফিলিপিন্সের বাসিন্দাও। ভারতীয়দের মধ্যে অধিকাংশই তামিলনাড়ু, কেরল, ভারতের উত্তর-পূর্বের কিছু রাজ্যের বাসিন্দা। আর প্রত্যেকেরই বয়স ২০-৫০ বছরের মধ্যে। কুয়েত প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, তারা হতাহতদের সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করছে।

 

কুয়েতের এই ঘটনার পর বুধবারই একটি উচ্চপর্যায়ের বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই বৈঠকে স্থির হয়, নিহতদের পরিবারকে ২ লক্ষ টাকা করে আর্থিক ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীও এক্স হ্যান্ডলে একটি পোস্ট করে পশ্চিম এশিয়ায় কর্মরত ভারতীয়দের সুরক্ষার বিষয়টি সুনিশ্চিত করার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আর্জি জানিয়েছেন। নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

Read more:- বুধবার আগুন কলকাতা বিমানবন্দরে! ৮টি ইঞ্জিনের প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে

সূত্রের খবর, এই ঘটনায় মৃতদের মধ্যে অধিকাংশ কেরালার বাসিন্দা রয়েছেন। তাই আগুন লাগার ঘটনায় দুঃখপ্রকাশ করেছেন কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নও। দুর্ঘটনায় আক্রান্তদের সাহায্যার্থে হেল্পলাইন নম্বর চালু করেছে কুয়েতের ভারতীয় দূতাবাস। হেল্পলাইন নম্বর – +965-65505246। কুয়েতে থাকা ভারতের রাষ্ট্রদূত হাসপাতালে গিয়ে সেখানে ভর্তি আক্রান্তদের সঙ্গে দেখা করেন বলেই সূত্রের খবর।

এইরকম গুরুত্বপূর্ণ প্রতিবেদন পেতে ওয়ান ওয়ার্ল্ড নিউজ বাংলার সাথে যুক্ত থাকুন।

Sanjana Chakraborty

Professional Content Writer