Math Phobia: আপনার শিশুরও কী অঙ্ক নিয়ে আতঙ্ক রয়েছে? সহজ কৌশলে কাটিয়ে দিন তার গণিত-ভীতি, বিস্তারিত জেনে নিন

Math Phobia: কিছু সহজ কৌশল অবলম্বন করলেই অঙ্কের ভীতি কেটে যাবে বলে মত বিশেষজ্ঞদের

 

হাইলাইটস:

  •  অঙ্কের ভীতি ছোটবেলাতেই কাটিয়ে দেওয়া দরকার
  •  এর জন্য প্রয়োজন আপনাদের ধৈর্য এবং সহানুভূতি
  •  এই সম্পর্কে সহজ কয়েকটি টিপস জেনে নিন

Math Phobia: অঙ্কের ভীতি ছোটবেলাতেই কাটিয়ে দেওয়া দরকার। আর সেটা খুব একটা কঠিন কাজও নয়। আপনার সন্তানের ক্ষেত্রেও কিছু কৌশল অবলম্বন করলেই সমস্যার সমাধান হতে পারে। তবে এর জন্য প্রয়োজন আপনাদের ধৈর্য এবং সহানুভূতি। এই বিষয়ে সহজ কয়েকটি টিপস জেনে নিন।

শিশু যদি অঙ্কে কাঁচা হয়, তাহলে তার সামনে গণিত-ভীতি তুলে না ধরাই শ্রেয়। বরং এই সময় তাকে নানা ভাবে উৎসাহিত করার চেষ্টা করতে হবে। যদি আপনার নিজেরও মনে মনে এখনও অঙ্কের প্রতি ভীতি থাকে, তবে সেটা কখনই বাচ্চাকেবলবেন না বা বাচ্চার সামনে অঙ্ক বিষয়ে নেতিবাচক মন্তব্য করবেন না।

We’re now on WhatsApp – Click to join

খেলাধূলার মাধ্যমে অঙ্কের প্রতি আপনার বাচ্চার আকর্ষণ বাড়িয়ে তুলুন। এক সমীক্ষা থেকে জানা গেছে যে, ব্লক, ধাঁধা, কার্ড গেম এবং এমনকি ভিডিও গেম থেকেও অঙ্ক করতে ক্রমশ আগ্রহ জন্মাতে পারে বাচ্চাদের। খেলার আনন্দে ক্রমশ অঙ্কের প্রতি তার টান জন্মাবে। এই ধরনের খেলা মস্তিষ্ককে অনেক বেশি সচল এবং সতর্ক করে তোলে। তা ছাড়াও বাচ্চারা যত বেশি লুডো, দাবা এবং সংখ্যাযুক্ত যে কোনও খেলা খেলবে, অঙ্ক করার ব্যাপারে তত বেশি আড়ষ্টতা কাটিয়ে উঠবে সে।

এছাড়াও বাড়ির বিভিন্ন কাজকর্মের মাধ্যমে আস্তে আস্তে গণিত-ভীতি কাটিয়ে ফেলা যায়। একটি নির্দিষ্ট আয়তনের কেক বানাতে কত কেজি ময়দা, ক’টি ডিম, বেকিং পাউডার লাগবে তা শিশুকে নির্ণয় করতে দিন। এই ধরনের কাজের মাধ্যমে যেমন বয়সে ছোট হলেও সন্তানকে আপনি গুরুত্ব দিচ্ছেন সেটা যেমন সে বুঝবে, তেমনই অঙ্ক নিয়েও মাথা খাটাতে থাকবে। এতেই আপনার শিশু নিজের অজান্তেই মুখে মুখে হিসাব কষার অভ্যাস করে ফেলবে।

বাজার করার সময়েও আপনার সন্তানকে সঙ্গে নিয়ে যান। কত কেজি সব্জি কেনা হল, কিংবা রসিদে লেখা দাম সঠিক ভাবে যোগ করা হয়েছে কি না তা একবার যাচাই করে নিতে বলুন ওকে। এই ভাবে শুধু অঙ্কের ভীতিই দূর হবে না, সেই সঙ্গে সন্তান ও অভিভাবকের মধ্যে পারস্পরিক বোঝাপড়াও কয়েক গুণে বৃদ্ধি পাবে। এই অভ্যাস গুলি করলেই আপনার শিশু সহজেই অঙ্কের ভীতি কাটিয়ে উঠতে পারবে।

এই রকম জীবনধারা সংক্রান্ত আরও প্রতিবেদন পেতে ওয়ান ওয়ার্ল্ড নিউজ বাংলার সাথে যুক্ত থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.