US Air Strike: সেনা মৃত্যুর বদলা নিতে ইরাক-সিরিয়ায় ৮৫টি ঘাঁটিতে এয়ারস্ট্রাইক চালাল মার্কিন সেনা

US Air Strike: মার্কিন সেনার মৃত্যুতে ইরাক-সিরিয়া সংলগ্ন জায়গায় এয়ারস্ট্রাইক চালাল আমেরিকা

 

হাইলাইটস:

  • গত রবিবারই জর্ডানের এক চেনা সেনাঘাঁটিতে হামলা চালায় ইরানের এক জঙ্গিগোষ্ঠী
  • এই হামলায় মৃত্যু হয় তিনজন মার্কিন সেনা
  • এবার সেনার মৃত্যুর বদলা নিতেই ইরাক-সিরিয়ায় এয়ারস্ট্রাইক চালালো আমেরিকা

US Air Strike: গত সপ্তাহের রবিবার জর্ডানের একটি সেনাঘাঁটিতে ড্রোন হামলা চালিয়েছিল ইরান সমর্থিত একটি জঙ্গিগোষ্ঠী। ওই হামলায় ৩ জন মার্কিন সেনার মৃত্যু হয়। এবার তার পাল্টা জবাব দিতে শুরু করল আমেরিকা। সেনা হত্যার বদলা নিতে ইরাক এবং সিরিয়ায় শুরু হল এয়ারস্ট্রাইক।

We’re now on WhatsApp – Click to join

মার্কিন সেনার তরফে জানানো হয়েছে, ইরানিয়ান ফোর্স এবং তেহরান সমর্থিত জঙ্গি গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করেছে তারা। গত সপ্তাহে জর্ডানের একটি সেনাঘাঁটিতে যে ড্রোন হামলা চলেছিল তার বদলা নিতেই শুরু হয়ে হয়েছে এয়ারস্ট্রাইক।

সূত্রের খবর, মিলিশিয়া গোষ্ঠীগুলির অন্তর্গত ৮৫টিরও বেশি ইরানি ঘাঁটিতে এয়ারস্ট্রাইক চালিয়েছে আমেরিকা। বিশেষ করে বলা যায়, ইরানের কুর্দস বাহিনীকে নিশানা করা করছে মার্কিন সেনা। মার্কিন সেন্ট্রাল কম্যান্ডের তরফে জানানো হয়েছে, মূলত ইসলামিক রেভেলিউশনারি গার্ড কর্পস কুদস ফোর্সকেই আক্রমণ করা হয়েছে। তাই লং রেঞ্জ বম্বার যুদ্ধবিমান পাঠানো হয়েছে।

গত রবিবার জর্ডানের একটি সেনাঘাঁটিতে ড্রোন হামলা চালায় ইরান সমর্থিত একটি জঙ্গিগোষ্ঠী। পরে ওয়াশিংটনের তরফে সতর্কবার্তা দেওয়া হয়েছিল যে, পরবর্তী হামলা চললে পরিণাম ভয়ঙ্কর হবে। গতকাল মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বিবৃতি দিয়ে জানান, “এবার আমাদের জবাব দেওয়া শুরু হল। আমাদের পছন্দসই জায়গা এবং সময় অনুযায়ী আক্রমণ চলবে। মধ্য প্রাচ্য বা বিশ্বের অন্য কোথাও সংঘর্ষ হোক, তা আমেরিকা চায় না। তবে যারা আমাদের ক্ষতি করতে চাইছে, তাদের উদ্দেশ্যে বলে রাখি, যদি আমেরিকানদের ক্ষতি করো, তবে আমরা কিন্তু জবাব দেবই।”

আমেরিকার ন্যাশনাল সিকিউরিটি কাউন্সিলের মুখপাত্র জানান, প্রায় ৩০ মিনিট ধরে এয়ারস্ট্রাইক চালানো হয়েছে। বি-১ লং রেঞ্জ বম্বার যুদ্ধবিমান পাঠানো হয়েছে। এই হামলায় ক্ষয়ক্ষতি কতটা হয়েছে, তারই হিসাব করা হচ্ছে।

অবশ্য অন্যদিকে, সিরিয়ার এক সংবাদমাধ্যমের তরফে দাবি করা হয়েছে যে, মার্কিন সেনার হামলায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এমনকি প্রচুর হতাহতও হয়েছে। তবে হতাহতের সংখ্যাটা ঠিক কত, সে সম্পর্কে এখনও কিছু জানা যায়নি।

এইরকম আন্তর্জাতিক বিষয়ক প্রতিবেদন পেতে ওয়ান ওয়ার্ল্ড নিউজ বাংলার সাথে যুক্ত থাকুন।

Sanjana Chakraborty

Professional Content Writer

Leave a Reply

Your email address will not be published.