লোকসভা নির্বাচনের আগে শেষ পূর্ণাঙ্গ বাজেট পেশ হল আজ

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ পঞ্চমবার অর্থমন্ত্রী হিসাবে সংসদে বাজেট পড়ে শোনালেন

২০২৪ অর্থাৎ পরের বছরই লোকসভা নির্বাচন। তার আগে আজ লোকসভায় শেষ পূর্ণাঙ্গ বাজেট পেশ করলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। এই নিয়ে পঞ্চমবার অর্থমন্ত্রী হিসাবে সংসদে বাজেট পড়ে শোনালেন নির্মলা। দ্বিতীয় নরেন্দ্র মোদী সরকারের শেষ পূর্ণাঙ্গ বাজেট ঘিরে প্রত্যাশা তুঙ্গে ছিল প্রথম থেকেই। এবারের বাজেটে মধ্যবিত্তের প্রত্যাশা কিছুটা হলেও মেটাল কেন্দ্র। অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন বাজেটে মধ্যবিত্তকে দিলেন বড়ো উপহার। দেখে নিন কী কী ঘোষণা করলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী–

•কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী বলেন, ভারতের অর্থনীতিকে বিশ্ব এক উজ্জ্বল নক্ষত্র হিসেবেই মেনে নিয়েছে।

•ভারতের অর্থনীতি এখন বিশ্বের পঞ্চম স্থানে বললেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। তিনি আরও জানান, পর্যটনক্ষেত্রকে উন্নত করতে সরকার বদ্ধপরিকর। এতে বেকার যুবক-যুবতীদের কাজ মিলবে।

•অর্থমন্ত্রী জানান, পর্যটনের জন্য বিশেষ অ্যাপ থাকবে, সেখানে সব তথ্য পাওয়া যাবে। দেশের ও বিদেশের পর্যটকরা এই অ্যাপ অ্যাক্সেস করতে পারবেন।

•অর্থমন্ত্রী জানান, স্টার্ট আপদের উৎসাহ দেওয়ার জন্য, একাধিক উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। স্টার্ট আপদের উৎসাহ দেওয়ার ক্ষেত্রে ভারতের স্থান বিশ্বে তৃতীয়।

•কর্মসংস্থান নিয়ে বড়ো বার্তা দিলেন অর্থমন্ত্রী। তিনি বলেন, কর্মসংস্থান তৈরি আমাদের প্রধান লক্ষ্য, এর পাশাপাশি মহিলাদের কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে সরকার কাজ করে চলেছে।

•কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী বলেন, রেলের জন্য ২.৪১ লাখ কোটির বরাদ্দ করা হয়েছে। যা আগের থেকে ৯ গুণ বেশি। কয়লা, খাদান সবক্ষেত্রেই ৭৫ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করা হবে।

•প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনায় বরাদ্দ বাড়ানো হল ৬৬ শতাংশ, জানালেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন।

•অর্থমন্ত্রী জানান, রাজ্যগুলিকে বিনা সুদে ঋণ দেওয়ার প্রক্রিয়া চালু থাকবে। ৫০ বছরের জন্য বিনা সুদে এই ঋণ দেওয়া চলবে।

•তিনি জানান, জম্মু ও কাশ্মীরের উপর সরকারের নজর রয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকারের লক্ষ্য সবার উন্নতি ও বিকাশ।

•২০২৩-২০২৪ বাজেটে সাতটি বিষয়ের উপর সরকার গুরুত্ব দিয়েছে। এই সাতটি বিষয়কে বলা হয়েছে সপ্তর্ষি। অর্থমন্ত্রী জানান, সকলকে উন্নয়নে শামিল করা, পরিকাঠামোর উন্নয়ন, কম বয়সিদের বৃদ্ধিতে জোর দিতে হবে। এর সাথেই কৃষক, মহিলা, অনগ্রসর শ্রেণি, তফসিলি জাতি, উপজাতি, অর্থনৈতিকভাবে পিছিয়ে পড়া সকলকে বৃদ্ধির আওতায় নিয়ে আসতে হবে।

•অর্থমন্ত্রী জানান, স্বচ্ছভারত মিশনে ১১.৭ কোটি মানুষের বাড়িতে শৌচালয় দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও এলপিজি কানেকশন, পিএম জীবন জ্যোতির বিমা, পিএম কিষান নিধি প্রকল্পকে এই সরকার বাস্তবায়িত করেছে।

•মহিলাদের জন্য নতুন সঞ্চয় প্রকল্প ঘোষণা করলেন অর্থমন্ত্রী। এতে মহিলারা ২ লক্ষ টাকার সঞ্চয়ের উপর ৭.৫% সুদ পাবেন।

•অর্থমন্ত্রী জানান, জয়েন্ট ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ১৫ লক্ষ টাকা রাখা যাবে। আগে ৯ লক্ষ পর্যন্ত রাখা যেত।

•আগামী ৩ বছরে কেন্দ্রীয় সরকার পরিচালিত মডেল রেসিডেন্সিয়াল স্কুলে ৩৮ হাজার ৩৮০ শিক্ষক নিয়োগের কথা ঘোষণা করলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন।

•অর্থমন্ত্রী জানান, পশুপালন, মৎস্যচাষের উপর বিশেষ নজর দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। ৬ হাজার কোটি টাকার নতুন বিনিয়োগ বরাদ্দ করা হচ্ছে। ছোট এবং মাঝারি কৃষকদের জন্য সমবায় অর্থনৈতিক মডেলের কথা ভাবছে সরকার।

•অর্থমন্ত্রী জানান, কর কাঠামোয় ছাড় ঘোষণা কেন্দ্রের। আয়কর ছাড়ের উর্ধ্বসীমা বেড়ে হল ৭ লক্ষ টাকা। আগে ছিল ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত করশূন্য।

•তিনি জানান, সিনিয়র সিটিজেন সেভিংস স্কিমে টাকা জমা রাখার ঊর্ধ্বসীমা বাড়ল। ৪.৫ লক্ষ থেকে বেড়ে হল ৯ লক্ষ টাকা।

•২০২৩-২০২৪ বাজেটে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী জানান, MSME ঋণ আরও সহজলভ্য করতে জোর দেওয়া হবে। তার জন্য আরও ৯ হাজার কোটি বরাদ্দ করা হল।

•দেশে আরও ৫০টি বিমানবন্দরের আধুনিকীকরণ এবং হেলিপ্যাড তৈরি করা হবে বলে জানালেন অর্থমন্ত্রী।

•দেশজুড়ে আরও ৩০টি স্কিল ইন্ডিয়া প্রশিক্ষণ কেন্দ্র গড়া হবে বলে জানালেন অর্থমন্ত্রী।

•কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন ঘোষণা করেন, নতুন ১৫৭টি মেডিকেল কলেজ গড়ে তোলা হবে।

•অর্থমন্ত্রী জানান, তটরেখা জুড়ে ম্যানগ্রোভ অরণ্য তৈরির উদ্যোগ নেওয়া হবে।

•সরকারি পুরনো গাড়ি ও অ্যাম্বুল্যান্স বাতিলে জোর দেওয়া হবে বলেন জানান অর্থমন্ত্রী।

•অর্থমন্ত্রী জানান, হাইড্রোজেন মিশনে ১৯,৭০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করবে সরকার।

•‘সব সরকারি জায়গায় ডিজিটাল সিস্টেমের পরিচয়পত্র হবে প্যানকার্ড’ ঘোষণা অর্থমন্ত্রীর। এর পাশাপাশি ডিজিটাল অর্থনীতির উপর জোর দিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী। ফলে KYC প্রক্রিয়া সহজতর করা হচ্ছে।

•তিনি জানান, কিষাণ ক্রেডিট কার্ডে বরাদ্দ করা হবে ২০ লক্ষ কোটি টাকা।

•আদিবাসী উন্নয়নের জন্য ‘PMBPTG উন্নয়ন মিশন’ চালুর ঘোষণা করলেন অর্থমন্ত্রী। আগামী ৩ বছরে এই প্রকল্পটি বাস্তবায়নের জন্য ১৫ হাজার কোটি টাকা খরচ হবে।

•পঞ্চায়েত ক্ষেত্রে শিক্ষা, স্বাস্থ্যের উন্নতিতে আরও জোর দেওয়ার কথা ঘোষণা করলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী।

•পরিবহণ পরিকাঠামো উন্নয়নের ১০০টি প্রকল্প খাতে ৭৫ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ করবে সরকার।

Sanjana Chakraborty

My name is Sanjana Chakraborty. I'm a content writer. Writing is my passion. I studied literature, so I love writing.

1 Comment

  1. প্রিয়,
    সঞ্জনা চক্রবর্তী,
    আপনার লেখা প্রতিনিয়ত পড়ি। বলতে গেলে ওটাই আমার প্রত্যহ দেশ দুনিয়ার খবর জানার ক্ষেত্র। বেশ সহজ সরল ভাষায় আপনার লেখা গুলো যা বুঝতে খুবই সুবিধা হয়। সাথে সাথে আপনার লেখা যথেষ্ঠ সন্তুষ্টপূর্ণ । আপনার রান্না বান্নার লেখাগুলোও আমার মা প্রতিনিয়ত পড়েন। আগামী দিনে আরও ভালো ভালো লেখা পড়তে চাই। ভালো থাকবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.