জীবনধারা

মালদার পর এবার নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশনের কাছে বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের উপর পাথরবৃষ্টি

এবার আর রাতের অন্ধকার না, দিনে দুপুরেই পাথরবৃষ্টি বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের উপর

উদ্বোধন হওয়ার সাথে সাথেই বন্দে ভারত এক্সপ্রেস নিয়ে বাংলার মানুষের উন্মাদনা চরম আকৃতি নিয়েছে। কিন্তু বঙ্গের এই প্রথম বন্দে ভারত এক্সপ্রেস লক্ষ্য করে পাথর বৃষ্টির অভিযোগ উঠেছিল গত সোমবার। ট্রেনটি যখন নিউ জলপাইগুড়ি থেকে হাওড়ার দিকে রহনা হয় তখন মালদার কাছে হঠাৎ-ই পাথরবৃষ্টি শুরু হয়েছিল। রেল সূত্রে খবর, সোমবার বিকেল ৫টা ১০-এ, মালদার কুমারগঞ্জ স্টেশনের কাছে ডাউন বন্দে ভারত এক্সপ্রেস লক্ষ্য করে পাথর ছোড়া হয়। ভেঙে যায় C-13 কামরার দরজার কাচ। ক্ষতিগ্রস্ত হয় ট্রেনের জানালাও। আতঙ্কিত হয়ে পড়েন যাত্রীরা। ওই দিনই হাওড়া স্টেশনে ট্রেনটি পৌঁছানো মাত্রই তড়িঘড়ি পর্যবেক্ষণ করা হয় এবং মেরামত করা হয় ক্ষতিগ্রস্ত অংশগুলি। মঙ্গলবার পুনরায় এই একই ঘটনার সম্মুখীন হলেন বঙ্গবাসী। মালদার পর এবার নিউ জলপাইগুড়িতে আক্রান্ত হাওড়া-নিউ জলপাইগুড়ি আপ বন্দে ভারত এক্সপ্রেস। দিনে দুপুরেই নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশনের কাছে বন্দে ভারত এক্সপ্রেসে হামলা। পাথরের আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের C-3, C-6 কামরা।

হাওড়া-নিউ জলপাইগুড়ি বন্দে ভারত এক্সপ্রেসে লাগাতার তৃতীয় দিনেও বিপত্তি। ফের আক্রান্ত বন্দে ভারত এক্সপ্রেস। যাত্রা শুরুর তৃতীয় দিনে দ্বিতীয় বার হামলা। বড়োসড়ো প্রশ্নের মুখে ট্রেনের যাত্রী সুরক্ষা। এই ঘটনায় যাত্রীদেরও বড়সড় দুর্ঘটনা ঘটতে পারত। C-6, C-3 কামরা জানালার পাশে বসা যাত্রীদের প্রাণ সংশয় হতে পারত তা ভেবেই শিউরে উঠছেন সকলে। কেন বার বার এই হামলা হচ্ছে, এই নিয়ে উঠছে নানা প্রশ্ন। শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা।

গত ৩০শে ডিসেম্বর ২০২২ অর্থাৎ শুক্রবার বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের ভার্চুয়াল উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আর সোমবারই মালদায় হাওড়াগামী ডাউন ‘বন্দে ভারত’ এক্সপ্রেস লক্ষ্য করে ছোঁড়া হল ইট-পাথর। চিড় ধরল ঝাঁ চকচকে নতুন ট্রেনের জানলার কাচে। আর ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই ফের আক্রমণ বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের উপর। এবার হাওড়া থেকে নিউ জলপাইগুড়ি ঢোকার সময় ফের বন্দে ভারত এক্সপ্রেসকে লক্ষ্য করে পাথরবৃষ্টি। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে দুটি কামরা C-3 ও C-6।

রাতের অন্ধকারের পর এবার ভর-দুপুরেই বন্দে ভারত এক্সপ্রেসকে লক্ষ্য করে ইট ও পাথর ছোঁড়া হয়েছে বলে দাবী করা রয়েছে। রেল সূত্রের খবর, মঙ্গলবারও হাওড়ার অভিমুখে রওনা হওয়া বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের দুটি কামরার জানালার কাচ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। কে বা কারা কী উদ্দেশে এই ঘটনা বার বার ঘটাচ্ছে তা নিয়ে তোলপাড় বঙ্গ রাজনীতি। শাসক এবং বিরোধীরা দাবী করছেন পরিকল্পনা করেই বার বার এই ঘটনা ঘটানো হচ্ছে। বিরোধী নেতা শুভেন্দু অধিকারীর নিশানায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তাঁর দল এবং অন্যদিকে জোড়াফুল শিবিরের তরফে দাবি, বাংলাকে বদনাম করতেই ইচ্ছাকৃত এই ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। কিন্ত বিরোধী শিবির তা মানতে নারাজ।

ট্রেনটি এদিন হাওড়ায় ফিরতেই ক্ষোভ উগরে দেন যাত্রীরা। পর পর দুদিন এই হামলায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে রাজ্যজুড়ে। এদিনের ঘটনাতেও অজ্ঞাত পরিচয় দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছে নর্থ রেল ফ্রন্টিয়ার। তদন্ত করে দেখবে কাটিহার ডিভিশনে তৈরি কমিটি। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, এমন ঘটনা বার বার ঘটলে যাত্রীদের নিরাপত্তা কোথায়।

Sanjana Chakraborty

My name is Sanjana Chakraborty. I'm a content writer. Writing is my passion. I studied literature, so I love writing.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button