জীবনধারা

জন্ডিস রোগীদের জন্য এই ৫ রকম খাবার খুবই উপকারী

লিভারের অসুখ হল জন্ডিস

জন্ডিস শব্দটি এসেছে ফরাসি শব্দ “jaunisse” থেকে। যার অর্থ হলুদাভ। জন্ডিস হলে রক্তে বিলিরুবিনের মাত্রা বেড়ে যায়। ফলে ত্বক, চোখের সাদা অংশ এবং অন্যান্য মিউকাস ঝিল্লি হলুদ হয়ে যায়। লিভারের অসুখ হল জন্ডিস। ভারত সহ প্রায় সারা বিশ্বেই জন্ডিসের প্রধান কারণ হেপাটাইটিসের ভাইরাস। জন্ডিস হলে লিভার একেবারেই নষ্ট হয়ে যায়। এই সময় বেশি করে জল খাওয়া উচিত।

জন্ডিসের উপসর্গগুলি হল:

•চোখ এবং প্রস্রাবের রং হলুদ হয়ে যাওয়া

•ক্ষুধামন্দা

•শারীরিক দুর্বলতা

•জ্বর জ্বর অনুভূতি

•বমি ভাব

•ত্বকে চুলকানি

এই ৫ রকম খাবার খাদ্যতালিকায় থাকলে দ্রুত রোগ নিরাময় সম্ভব:

​তাজা শাকসবজি:

তাজা শাকসবজিতে ভিটামিন C এবং E, বিটা ক্যারোটিন, দস্তা, ফসফরাস, ম্যাগনেশিয়াম এবং ফলিক অ্যাসিড সহ অনেক ভিটামিন এবং খনিজ থাকে। এই সমস্ত খাবারে চর্বি বা ফ্যাট, চিনি বা সুগার এবং লবণের পরিমাণ অনেক কম। এবং ফাইবার ও পাচক এনজাইমের পরিমাণ বেশি। তাই তাজা শাকসবজি জন্ডিস আক্রান্তদের জন্য অত্যন্ত সহায়ক। এই উপকারী শাকসবজিগুলি হল- পালং শাক, ব্রোকোলি, ফুলকপি, গাজর, টমেটো, রাঙা আলু, কুমড়ো ইত্যাদি।

তাজা ফল:

তাজা ফল এবং সবজিতে শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং ফাইবার থাকে। এই উপাদান লিভারের বিপাকীয় ক্ষতিকে হ্রাস করে। ফলে লিভার দ্রুত সুস্থ হতে শুরু করে। এছাড়া এই উপাদান হজমকে সহজতর করে তুলতে সাহায্য করে। ফাইটোকেমিক্যালস সমৃদ্ধ এবং নানা উপকারী উপাদান সমৃদ্ধ পদার্থ থাকা ফল লিভারের রোগ থেকে মানুষকে রক্ষা করে। উপকারী ফলগুলি হল-আঙুর, পাতিলেবু, পেঁপে, এভোকাডো, ক্রানবেরি এবং ব্লুবেরি ইত্যাদি।

​চা:

জন্ডিসের সময় চা পান করলে দ্রুত সেরে উঠা সম্ভব। চায়ের মধ্যে উপস্থিত উচ্চমাত্রার অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকার কারণে, এটি লিভারে প্রদাহ হ্রাস করে এবং হজমে সহায়তা করে ফলে জন্ডিস থেকে সেরে উঠতে সহায়তা করে। তাই দিনে একবার অন্তত চা পান করুন।

বাদাম:

বাদামজাতীয় শস্যগুলি মূলত ভিটামিন E এবং ফেনোলিক অ্যাসিডের মতো অ্যান্টিঅক্সিডেন্টগুলিতে সমৃদ্ধ। বাদামজাতীয় শস্যগুলিতে সাধারণত প্রচুর ফাইবার এবং স্বাস্থ্যকর ফ্যাট থাকে। গবেষণায় দেখা গেছে যে, আখরোট এবং অন্যান্য বাদাম নিয়মিত খাওয়া হলে লিভারের কার্যকারিতা বৃদ্ধি পায়। তাই আমন্ড বা আখরোট জন্ডিস রোগীর খাদ্যতালিকায় রাখা উচিত।

দানা শস্য:

দানা শস্যতে থাকে প্রচুর পরিমাণে ভালো ফ্যাট, ফাইবার, অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস এবং খনিজ পদার্থ। তাই জন্ডিস রোগীদের এইসব খাবার খাওয়া উচিত। দানা শস্যে থাকা নানা পুষ্টিগুণ শুধু লিভার নয়, শরীরের অন্যান্য অঙ্গকেও সুস্থ রাখে।

এছাড়াও বেশি পরিমানে জল পান করা উচিত। দিনে অন্তত ৪ লিটার জল পান করতে হবে। যার ফলে অতিরিক্ত টক্সিন শরীর থেকে বেরিয়ে যায়। এবং লিভার ফাংশন সঠিক থাকবে ও ওজনও নিয়ন্ত্রনে থাকবে।

Sanjana Chakraborty

My name is Sanjana Chakraborty. I'm a content writer. Writing is my passion. I studied literature, so I love writing.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button