জীবনধারা

আগামী ৩ দিন বিশেষ সতর্ক বার্তা দিয়েছে আলিপুর হাওয়া অফিস

গত ৫ বছরে জানুয়ারি মাসে এমন ঠান্ডা অনুভব করেনি বঙ্গবাসী

কলকাতা: বছরের শুরু থেকেই শীত তার দাপট দেখাতে শুরু করে দিয়েছে। হাড় কাঁপানো শীতে জুবুথুবু হয়ে পড়েছে সমগ্র বাংলা। বৃহস্পতিবারের পর শুক্রবার আরও নামল পারদ। ভোরের সকালে হু হু করে উত্তরের হওয়া বইছে। আর চলতি সপ্তাহে থেকেই কুয়াশাচ্ছন্ন আকাশ দেখা গিয়েছে কলকাতা সহ পার্শ্ববর্তী এলাকা গুলিতেও। এই মুহূর্তে আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, আগামী তিন দিনে দক্ষিণবঙ্গে রাতের তাপমাত্রা ২ থেকে ৪ ডিগ্রি কমবে। এছাড়াও আগামী ৫ দিন কোথাও বৃষ্টির কোনও সম্ভাবনা নেই। আজকে কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি কম। যদি জেলাগুলির দিকে নজর দিই সেই ক্ষেত্রে তাপমাত্রা পারদ আরও নিম্নমুখী। বৃহস্পতিবার ছিল কলকাতার শীতলতম দিন। রাত যত বেড়েছে, তাপমাত্রা ততই কমেছে। কিন্তু আজকের আবহাওয়া এইসব কিছুর রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে। আলিপুর হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস, আগামী ৩ দিন দক্ষিণবঙ্গের রাতের তাপমাত্রা ২ থেকে ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে চলেছে। গত পাঁচ বছরের মধ্যে এই তাপমাত্রা হল সর্বনিম্ন, যা বাংলার মানুষকে কাবু করে দিয়েছে।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, কলকাতা এবং তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ২১.৯ ডিগ্রির কাছাকাছি। আর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ১০ ডিগ্রির কাছাকাছি। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা কলকাতার ক্ষেত্রে আরও ২ ডিগ্রির মতো কমে ৮ ডিগ্রির কাছাকাছি নামবে। অন্যান্য জেলাগুলোতে আরও ৩-৪ ডিগ্রি মতো কমবে। সব মিলিয়ে বলা যায় বাংলায় শীতের ইনিংস শুরু হয়ে গেছে।

উত্তরবঙ্গের জেলাগুলির ক্ষেত্রে প্রধানত শুষ্ক পরিষ্কার আবহাওয়া থাকবে। আগামী ২-৩ দিন ভোরের দিকে উত্তরবঙ্গে কুয়াশার দাপট বেশি থাকবে। রাতের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২ থেকে ৩ ডিগ্রি মতো কমবে। আবহাওয়াবিদরা জানাচ্ছেন, ৮ই জানুয়ারি, রবিবার থেকে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়তে পারে। সামনে গঙ্গাসাগর স্নানযাত্রা আসছে, ফলে শীত থেকে এখনই বিরাম নেই বঙ্গবাসীর।

বাংলায় শীতের দাপট:

সমগ্র বাংলাতেই জাঁকিয়ে পড়েছে শীত। উত্তরবঙ্গের কয়েকটি জেলায় ঘন কুয়াশার সতর্ক বার্তা দিয়েছে হাওয়া অফিস। বাকি জেলায় সকালে হালকা থেকে মাঝারি কুয়াশা থাকবে। আগামীকাল অর্থাৎ শনিবার আরও একটু তাপমাত্রা নামতে পারে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। ছুটির দিন রবিবারেও শীতের আমেজ বজায় থাকবে বলেই জানানো হয়েছে। কিন্তু রবিবারের পর তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। উত্তরের হাওয়াতে কনকনে ঠান্ডা বাংলার জেলাগুলিতে । ঝাড়খন্ড ও বিহার সংলগ্ন জেলাগুলিতে শৈত্য প্রবাহের মতন পরিস্থিতি তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা আছে। পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতেও তাপমাত্রা ৮ ডিগ্রি বা তার নীচে নামতে পারে।

দেশের পরিস্থিতি কেমন?

রাজধানী দিল্লিতেও জাঁকিয়ে পড়েছে শীত। পশ্চিম ভারতের রাজ্যগুলিতে আগামী ২ দিন পরিস্থিতি একই থাকবে তারপর ৪ ডিগ্রির তাপমাত্রা বাড়তে পারে। তাপমাত্রা নামবে পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলিতে। মহারাষ্ট্রে তাপমাত্রা কমবে ২ থেকে ৪ ডিগ্রি আর গুজরাটে ২৪ ঘন্টা পর তাপমাত্রা বাড়বে ২ থেকে ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঘন কুয়াশার চাদরে মুড়ে গেছে উত্তর-পশ্চিম ভারত। পাঞ্জাব, হরিয়ানা, চন্ডীগড়, সমগ্র উত্তরপ্রদেশ এবং উত্তরাখান্ডে আগামী ৩ দিন ঘন থেকে অতি ঘন কুয়াশা থাকবে। এই রাজ্যগুলিতে কুয়াশার সতর্কতা জারি হয়েছে আর তার সাথেই শৈত্য প্রবাহের পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে রাজধানী দিল্লি, পাঞ্জাব, হরিয়ানা, চন্ডীগড়, হিমাচলপ্রদেশ এবং রাজস্থানে। উত্তর ভারতে শৈত্য প্রবাহের সৃষ্টি হলে আমাদের রাজ্যেও এর প্রভাব পড়বে।

Sanjana Chakraborty

My name is Sanjana Chakraborty. I'm a content writer. Writing is my passion. I studied literature, so I love writing.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button